পটুয়াখালীতে মৃত্যুর পর লাশ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন না করতে মুক্তিযোদ্ধার সংবাদ সম্মেলন

0
91

শহীদুল আলম, দীপ্ত নিউজ, পটুয়াখালী:


মৃত্যুর পর লাশ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন না করতে পটুয়াখালীতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন এক বৃদ্ধ মুক্তিযোদ্ধা। নিজের শেষ সম্বল অধিগ্রহনের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সকালে স্থাণীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ দাবী জানান তিনি।

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা আব্দুল আজিজ মল্লিক ক্ষুব্ধ আর ভারাক্রান্ত মনে সাংবাদিকদের জানান, ১৯৬৬ সালে সেনাবাহীনিতে যুক্ত হন। ৭১-এ মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহন করাসহ শতাধিক যোদ্ধাকে প্রশিক্ষন দেন। যুদ্ধ পরবর্তী সময়ে জীবিকা নির্বহের জন্য পূর্ব সুবিদখালী এলাকায় একটি দোকানঘর নির্মানের জন্য জমি ক্রয় করেন। একাধিক বার তার দেকান ভেঙ্গে দেয় পাশর্^বর্তী মসজিদ ও স্কুল কর্তৃপক্ষ।

জমির মালিকানা বিষয়ে দু’বার আদালত তার অনুকুলে নির্দেশ দিলেও সেখানে স্থাপনা নির্মান করতে গেলে বাধা দেয় উপজেলা প্রশাসন। সেখানে একটি মডেল মসজিদ নির্মানের লক্ষ্যে জমি অধিগ্রহন করা হচ্ছে। এতে বিপাকে পড়েছেন আজিজ মল্লিক। মসজিদ হোক তাতে কোন আপত্তি নেই তার। কিন্তু ভুক্তভোগী মুক্তিযোদ্ধার মাথা গোঁজার ঠাই এখন সরকারের হাতে। খুব দ্রত এ সমাধান চান বৃদ্ধ এই মুক্তিাযোদ্ধা। অন্যথায় মৃত্যুর পর তাকে যেন রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা না হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল জাকী জানান, তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাম প্রস্তাব করেন একটি মডেল মসজিদ নির্মানে। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসকের মতামত অবহিত করেছি। জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী তদন্ত স্বাপেক্ষে পরবর্তীতে নি:স্কন্টক জমি নির্বাচনের কার্যক্রম গ্রহণ করা যেতে পারে।

মন্ত্যব্য সমূহ