ধর্ষণের অভিযোগে খুবি শিক্ষার্থী পাপ্পুকে স্থায়ী বহিষ্কার

0
67

দীপ্ত নিউজ,শিক্ষা ডেস্ক ::


ধর্ষণের অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় পাপ্পু কুমার মন্ডল নামে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় (খুবি) এক ছাত্রকে আজীবন বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ওই শিক্ষার্থী চারুকলা প্রদর্শনীর নাম করে লাইব্রেরিতে নিয়ে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে ধর্ষণ করে এক ছাত্রীকে। ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী খুলনা কলেজিয়েট গার্লস কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ প্রশাসন ভবনের সম্মেলন কক্ষে সিন্ডিকেটের ২০২তম জরুরী সভায় অনুষ্ঠিত হয়। সভায় পাপ্পু কুমার মন্ডলের বহিষ্কারাদেশ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভাপতি হিসেবে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান। এছাড়া সভায় সিন্ডিকেটের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বহিষ্কৃত ছাত্র পাপ্পু কুমার মন্ডল বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা স্কুলের (অনুষদ) আওতাধীন প্রিন্টমেকিং ডিসিপ্লিনের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী।

এরআগে গত ৩ জুলাই খুবির চারুকলা অনুষদে অনুষ্ঠিত চিত্রকলা প্রদর্শনী দেখানোর নাম করে পাপ্পু ওই ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে আসে। পরে চারুকলায় যাওয়ার পর তাকে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে ভবনের ২য় তলার লাইব্রেরিতে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণ শেষে মেয়েটিকে ফেলে নিজের রুমে চলে যান পাপ্পু।

এ সংক্রান্ত অভিযোগ প্রাপ্তির পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ঘটনার তদন্তে বিশ্ববিদ্যালয় যৌন নিপীড়ন প্রতিরোধ সংক্রান্ত অভিযোগ কমিটিকে দায়িত্ব দেয়। অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত শেষে কমিটি গত ৪ আগস্ট তদন্ত রিপোর্ট দাখিল করে।

সিন্ডিকেটের জরুরী সভায় রিপোর্ট পেশ করা হলে কমিটির সুপারিশ পর্যালোচনার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিন্টমেকিং ডিসিপ্লিনের ঐ শিক্ষার্থী পাপ্পু কুমারের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আজীবন বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

মন্ত্যব্য সমূহ