খুলনায় আওয়ামী লীগ অফিসে বিস্ফোরণের দায় স্বীকার আইএসের

0
8

খুলনার খানজাহান আলী থানায় আওয়ামী লীগ অফিসে ককটেল বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস।আজ মঙ্গলবার বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর কার্যক্রম পর্যবেক্ষণকারী মার্কিন সংস্থা সাইট ইন্টেলিজেন্স এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছে।

খুলনার ফুলতলা থানার ওসি খান জাহান আলী বলেন, সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে স্থানীয় শিরোমনি এলাকায় সরকারি দল আওয়ামী লীগের একটি কার্যালয়ে এ বিস্ফোরণটি ঘটে।এ বিস্ফোরণে অবশ্য তেমন কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি, হতাহতের কোনো ঘটনাও ঘটেনি জানায় পুলিশ।

ঘটনার পরপরই বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ দল সেখানে গিয়ে আলামত সংগ্রহ করে। এখন পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে, বোমাটির প্রকৃতি কেমন ছিল।তবে ঘটনাস্থল ঘুরে এসে স্থানীয় সাংবাদিকরা জানাচ্ছেন, বোমাটি ছিল খুবই স্বল্প শক্তির।

কে বা কারা এ হামলার সঙ্গে জড়িত তা খতিয়ে দেখতে তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।তারা এখন পর্যন্ত সন্দেহভাজন কাউকে চিহ্নিত করতে পারেননি।

কেউ হামলার দায় স্বীকার করেনি বলে পুলিশ দাবি করলেও কিছুক্ষণের মধ্যেই আইএসের দায় স্বীকার করা ওই টুইটটি প্রকাশ করে সাইট ইন্টেলিজেন্স।এদিকে বোমা বিস্ফোরণের এ ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে দ্রুত তদন্তের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

সংগঠনের নেতাকর্মীরা খুলনা-যশোর শিরোমণি এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেছেন।এর আগে ৩১ আগস্ট ঢাকার সায়েন্স ল্যাবরেটরি এলাকার পুলিশ বক্সের সামনে চালানো ককটেল হামলার দায় স্বীকার করেছিল আইএস। ২৩ জুলাই রাতে রাজধানীর পল্টন ও খামাড়বাড়ি পুলিশ বক্সের কাছে থেকে বোমা উদ্ধার করা হয়।

এ ছাড়া গত ২৯ এপ্রিল গুলিস্তানে ট্রাফিক পুলিশকে লক্ষ্য করে হাতবোমা ছোড়া এবং ২৬ মে মালিবাগে পুলিশের এসবি কার্যালয়ের সামনে পুলিশের একটি পিকআপে বোমা হামলার ঘটনা ঘটে।

প্রতিটি ঘটনায় আইএস জড়িত থাকার দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে।

মন্ত্যব্য সমূহ