কপিলমুনিতে ঘুমের ট্যাবলেট খেয়ে বিউটি পার্লার মালিকের আত্নহত্যার চেষ্টা!

0
311

দীপ্ত নিউজ ডেস্ক:::


পাইকগাছার কপিলমুনির পার্শ্ববর্তী মামুদকাঠি মোড়ের একটি বিউটি পার্লারের মালিক ফারহানা জামান (২২) নামের এক মহিলা ঘুমের ওষুধ খেয়ে গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পড়ার খবর পাওয়া গেছে। রোববার রাত ১১ টার দিকে বিউটি পার্লারের ঘর মালিক জনৈক গো-খাদ্য ব্যবসায়ী ভোলা মন্ডল তাকে গুরুতর অবস্থায় কপিলমুনিস্থ চায়না ক্লিনিকে নিয়ে আসেন। এরপর রাত ৩ টার দিকে মেয়েটি খানিকটা স্বাভাবিক হলে ফের তিনিউ তাকে সাথে করে ঐ পার্লারে নিয়ে যান।

এব্যাপারে ক্লিনিকের মালিক তাপস কুমার সাধুর নিকট জানতে চাইলে তিনি দীপ্ত নিউজকে বলেন, রাতে মেয়েটির অবস্থা খারাপ দেখে তারা তার চিকিৎসা দিয়েছিলেন। বিষয়টি জটিল হওয়ায় তিনি স্থানীয় কপিলমুনি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ওসি (তদন্ত) সঞ্জয় কুমার দাশকে ফোনে বিষয়টি অবগত করেন। খবর পেয়ে রাতেই তিনি ক্লিনিকে উপস্থিত হন বলেও জানান তিনি।

এলাকাবাসী জানান,ফারজানা জামান দীর্ঘ দিন যাবৎ উপজেলার হরিঢালী ইউপির মামুদকাটি মোড়স্থ জনৈক গো-খাদ্য ব্যবসায়ী ভোলা মন্ডলের দ্বিতল ভবনের একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে সেখানে লাবণ্য বিউটি পার্লাার নামে একটি প্রতিষ্ঠান খুলে বিউটি পার্লারের ব্যবসা চালিয়ে আসছেন। এবং তিনি রাতেও সেখানে অবস্থান করেন বলে জানানো হয়। স্থানীয়রা জানান, ঐ ফ্লাটে একাধিক ব্যাচেলরের মধ্যে কেবল একটিই মহিলা (ফারহানা) ভাড়াটিয়া রয়েছেন।

তবে হঠাৎ কি কারণে তিনি ঘুমের ওষুধ খান তা তাৎক্ষণিক জানা জায়নি। ক্লিনিক মালিক তাপস সাধু জানান, মেয়েটি রাতে অন্তত ১৫/১৮ টির মত উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন ঘুমের ট্যালেট খেয়ে রীতিমত গুরুতর অসুস্থ্য অবস্থায় সেখানে ভর্তি হন।
সর্বশেষ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক গুঞ্জণ শুরু হয়েছে। (বিস্তারিত আসছে)

মন্ত্যব্য সমূহ