কৃষকলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির বিরুদ্ধে পাইকগাছায় সংবাদ সম্মেলন

0
2

দীপ্ত নিউজ,পাইকগাছা::


পাইকগাছায় কৃষক লীগের সদ্য ঘোষিত সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন, একই দলের গড়–ইখালী ইউনিয়নের আহ্বায়ক কামরুল ইসলাম গাইন।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পাইকগাছা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, জন্মগতভাবে তিনি আওয়ামী পরিবারের সন্তান। তার পিতা মোঃ কেসমত আলী গাইন দীর্ঘ ৪০ বৎসরের অধিককাল বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।

তিনি ও তার পরিবার আ’লীগের আদর্শ ধারণ করে দলীয় সকল কর্মস‚চী ও কর্মকান্ড আন্তরিকতার সঙ্গে পালন করে আসছেন। রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় তিনি একাধিক মামলারও সম্মুখীন হয়েছেন বলে উল্লেখ করেন তিনি। তার পিতার বর্তমানে ৭০ বৎসরের অধিক বয়সেও গড়ইখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কার্যকরী কমিটির অন্যতম সদস্য। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ কৃষকলীগ গড়ইখালী ইউনিয়ন শাখার আহবায়ক কমিটির আহবায়ক। দলকে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী করতে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন। তার মেঝ ভাই মোঃ আজমুল হোসেন গাইন উপজেলা মৎস্যজীবী লীগের সহ-সভাপতি এবং আরেক ভাই বাবুল হোসেন বাবু গাইন উপজেলা মৎস্যজীবী লীগের সদস্য সচিব।

কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয়, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ কৃষকলীগ পাইকগাছা উপজেলা আহবায়ক কমিটির বর্ধিত সভায় উপজেলা কৃষকলীগের আহবায়ক/সদস্য সচিব/ কোন সদস্য গড়ইখালী ইউনিয়ন কৃষক লীগের কোন সদস্যকে না জানিয়ে অগঠণতান্ত্রিকভাবে গোপনে গড়ইখালী ইউনিয়ন কৃষকলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি ঘোষণা করেন। যা তিনি পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মিডিয়ার মাধ্যমে জানতে পারেন।

সম্মেলনে তিনি আরো বলেন যে, আসন্ন ২০২১ সালের ইউপি নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দলীয় নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান পদে তিনি মনোনয়ন প্রত্যাশী হওয়ায় তার বিরুদ্ধে পাইকগাছা-কয়রার এক বিশেষ ক্ষমতাধর নেতার নগ্ন হস্তক্ষেপ বা চাপে কৃষকলীগ থেকে তাকে সরিয়ে দিতেই নীল নকশার মাধ্যমে উক্ত সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠণ করা হয়েছে বলে মনে করেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কল্যাণে তিনি জানতে পারেন যে, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিল্পব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানান যে, “বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কোন শাখা কমিটি উক্ত শাখার সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠণের কোন কমিটি বিলুপ্ত বা বাতিল করতে পারবেন না। সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠণের কোন শাখা কমিটি বিলুপ্তি বা বাতিল করার ক্ষমতা কেবলমাত্র ঐ সংগঠণের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের। কিন্তু কোন প্রকার নির্দেশনা না মেনে উপজেলার গড়ইখালী ও পৌরসভা সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠণ করা হয়েছে। যেটি সম্প‚র্ণ অগঠণতান্ত্রিক ও মনগড়া। এমনকি যাদেরকে আহবায়ক ও সদস্য সচিব করা হয়েছে- যথাক্রমে শক্তিপদ মন্ডল ও ইমতিয়াজ গাজী তার জানামতে, আওয়ামীলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠণের কোন পদ/ সদস্য পদে আগে ছিলেন না বা এখনও নেই। এমন ব্যক্তিদের মাধ্যমে কৃষকলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি করায় তিনিসহ ইউনিয়নের প্রকৃত আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বাংলাদেশ কৃষক লীগ, গড়ইখালী ইউনিয়ন শাখার অবৈধ, অগঠণতান্ত্রিক সদ্য ঘোষিত সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি বাতিলসহ কমিটি ঘোষণাকারীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের নিকট জোর দাবী জানান।

মন্ত্যব্য সমূহ